Search

আজকের দিন-তারিখ

  • শুক্রবার ( দুপুর ১২:২৭ )
  • ১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং
  • ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য নিয়োগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জাতীয় সংসদে বিল পাসের তিন বছর ২ মাস পর অবশেষে খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

 

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) অধ্যাপক ড. মো. শহীদুর রহমান খান খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ লাভ করেছেন।

 

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আদেশক্রমে আগামী ৪ বছরের জন্য তাকে উপাচার্য পদে নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।

 

তিনি খুলনা মেইল- এর এ প্রতিবেককে  মুঠোফোনে খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন গ্যালারিতে নবনিযুক্ত উপাচার্যকে ওই বিভাগের অন্যান্য শিক্ষকরা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

 

তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারডিসিপ্লিনারি সেন্টার ফর ফুড সিকিউরিটির (আইসিএফ) পরিচালক এবং ভেটেরিনারি অনুষদের মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

 

তিনি ১৯৮৬ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদ হতে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করে ডক্টর অব ভেটেরিনারি মেডিসিন (ডিভিএম) ডিগ্রি লাভ করেন এবং ১৯৮৭ সালে এমএস ইন মাইক্রোবায়োলজি ডিগ্রি লাভ করেন।

 

পরে জার্মানির ইউনিভার্সিটি অব লিপজেক থেকে ১৯৯৯ সালে পিএইচডি ও ২০০৩ সালে জাপান থেকে পোস্ট ডক্টরেট অর্জন করেন। ভেটেরিনারি বিজ্ঞানের উপর তার ৯২টি গবেষণামূলক প্রবন্ধ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি এ যাবৎ ১০৬ জনের অধিক ছাত্র-ছাত্রীর এম.এস. ও পিএইচডি ডিগ্রি তত্ত্বাবধান করেছেন।

 

তিনি দীর্ঘ ২৬ বছরের কর্মজীবনে শিক্ষকতা ও যুগোপযোগী গবেষণার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর, সহকারী প্রক্টর, দুইবার মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিভাগের প্রধান, হল প্রভোস্ট, সহকারী প্রভোস্ট ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা কাজের পাশাপাশি বিভিন্ন কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।

 

তিনি মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিশেষজ্ঞ হিসেবে এফএও এর কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন। এ ছাড়া তিনি সরকারের সিনিয়র রিজিওনাল ভ্যাক্সিন কনসালটেন্ট হিসেবেও সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ভেটেরিনারি এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, বাকৃবির মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শিক্ষক সংগঠন গণতান্ত্রিক শিক্ষক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাকৃবি লোকাল চ্যাপ্টার এর সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এ ছাড়া তিনি বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পেশাগত সংগঠনের কার্যক্রমের সাথে জড়িত ছিলেন।

 

নব নিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শহীদুর রহমান খান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা, সম্প্রসারণ ও প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার জন্য সকলের কাছে সহযোগিতা কামনা করেন।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ২০১১ সালের ৫ মার্চ খুলনার খালিশপুরে এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুলনায় একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রতিশ্র“তি দেন। এরপর নগরীর দৌলতপুরের কৃৃষি সম্প্রসারণ প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অব্যবহৃত ৫০ একর জমি এবং পাশের ব্যক্তি মালিকানাধীন ১২ একর জমি নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার প্রাথমিক পরিকল্পনা করা হয়েছে।

 

২০১৫ সালের ৫ জুলাই সংসদের অধিবেশনে ‘খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০১৫’ পাস হয়। এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে শিক্ষার্থীরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আওতায় ছয় মাসের ইন্টার্নশীপের সুযোগ পাবেন।




মন্তব্যসমূহ

টি মন্তব্য